You are currently viewing এই করোনার সময়ে, অনলাইনে ঈদের শপিং করুন

এই করোনার সময়ে, অনলাইনে ঈদের শপিং করুন

আমাদের আনন্দময় জীবনে করোনা যেনো নীল আকাশে কালো মেঘের মতো ছেয়ে গেছে। জীবনের প্রতিটা পদক্ষেপে এর প্রভাব স্পষ্ট। আমাদের সবারই থাকতে হচ্ছে দূরত্বে বজায় রেখে। তবে এই দূরত্ব যেনো জীবনের সব সুখ আহ্লাদ কেড়ে নিয়েছে। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এর বিরূপ প্রভাব পড়েছে। আমাদের পারিবারিক, সামাজিক, রাষ্ট্রীয়, আন্তর্জাতিক জীবনের সকল পর্যায় করোনার প্রভাব পরছে।

আমরা আমাদের দৈনন্দিনের স্বাভাবিক জীবনে নানা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যাই। কিন্তু করোনা নামক মহামারীর কারণে আমাদের সেই স্বাভাবিক জীবন ব্যহত হচ্ছে। আমরা এক বন্দি জীবন যাপন করছি। আমরা আমাদের উৎসব অনুষ্ঠান ঠিকভাবে উৎযাপন করতে পারছি না। যারা যেকোনো উৎসব অনুষ্ঠানে শপিংয়ের ব্যাগ নিয়ে এই মল থেকে অন্য মলে ছুটে যেতে পছন্দ করতো তাদের জন্য এই করোনা পরিস্থিতি যেনো গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে এই হতাশা থেকে মুক্তি দিতে পারে অনলাইন শপিং। আগে অনলাইন শপিংয়ে অনেক ঝামেলা পোহাতে হলেও এখনকার অনলাইন শপিং ব্যবস্থা যথেষ্ট উন্নত। যার কারনে ঘরে বসে নিশ্চিন্তে অনলাইনে কেনা কাটা করা যায়।

বর্তমানে শপিং মলে না গিয়ে অনলাইন শপিং কে প্রাধান্য দিচ্ছে উন্নত দেশের মানুষ। কারণ এতে অনেক সময় অপচয় রোধ হয় এবং শারীরিক ক্লান্তি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আগে পরিচিতি না থাকার কারণে মানুষ অনলাইন শপিং এর ব্যাপারে উদাসীন ছিল। তবে এখন বেশ পরিচিতি সহ বিশ্বস্ততা লাভ করেছে অনলাইন শপিং সাইট গুলো।

তাছাড়া আপনি শপিং মল ঘুরেও যেটা পাবেন না সেটা স্ক্রিন স্ক্রল করে খুব সহজে পেয়ে যাবেন। শপিং মলে একই সাথে একই দোকানে আপনি এতগুলো পণ্য পাবেন না যতগুলো একটা অনলাইন শপিং সাইটে পাবেন এবং এর জন্য আপনার কোনো ঝামেলাও পোহাতে হবে না। একেবারে ঘরে বসে নিশ্চিন্তে পণ্য পেতে পারেন শুধুমাত্র একটি ক্লিক করে।

সহজলভ্যতার জন্য অনলাইন শপিং বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মানুষের কাছে। এছাড়াও সময় ও শ্রম দুটোরই অপচয় রোধ হয় এর মাধ্যমে। তবে বাঙ্গালীর ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মানেই যেনো নতুন পোশাক পরার হিড়িক। ঈদের সময় তো ধনী-গরীব সকলে শপিং মলে ছুটে যায়, ভিড় জমায় কাপড়ের দোকানে। যা এই করোনা পরিস্থিতিতে একেবারেই কাম্য নয়।

এরকম ভিড় করোনার ভয়াবহ রূপ নেওয়ার আশঙ্খা প্রকট করে। তাই বলে তো ঈদের আনন্দ বিসর্জন দেওয়া যায় নাহ। তাই ঈদের আনন্দ বজায় রাখতে রয়েছে বিকল্প ব্যবস্থা। ঈদ যেনো প্রতি ঘরে ঘরে আনন্দ পৌঁছে দেয় সেই ব্যবস্থা করে রেখেছে অনলাইন শপিং সাইট গুলো।

এখানে দাম নিয়ে চিন্তা করতে হয় না। হয় না করতে দর কষাকষি। কারণ চোখের সামনে রয়েছে হরেক রকমের সমাহার। এক জায়গায় ভালো না লাগলে আরেক জায়গায় পাওয়া যায় নিজের পছন্দের জিনিসটা। নেই কোনো সিন্ডিকেটের হানা। কোনো ধরনের ট্রাফিক জ্যাম এর মধ্য দিয়েও আপনাকে শপিং মলে যেতে হচ্ছে না। নিজের পছন্দের পণ্যটি অর্ডার করতে পারছেন।

তাহলে এতো কিসের চিন্তা? কেনো এত হতাশা? সব ধরনের চিন্তার অবসান ঘটাতেই গড়ে উঠছে নতুন নতুন অনলাইন শপিং সাইট। এছাড়াও অনলাইনে কেনাকাটায় অনেক সুবিধা রয়েছে। ঈদ, পূজা সহ যেকোনো উৎসব উপলক্ষে বিশেষ মূল্যছাড় পাওয়া যায়। আমাদের ঈদ কে আরো আনন্দময় করে তুলতেই গড়ে উঠছে অনেক অনেক অনলাইন শপিং ব্যবস্থা।

ঠিক এমন এক শপিং সাইট হচ্ছে amtrs.com.bd যেখানে আপনি আপনার পছন্দের কাপড় খুব সহজে অর্ডার করতে পারবেন। শুধু অর্ডার নয় এই সাইটে আপনি অর্ডার করে দ্রুত ডেলিভারি পাচ্ছেন। সর্বোচ্চ বিশ্বস্ততার সাথে ভালো মানের কাপড়ের নিশ্চয়তা এই সাইটে রয়েছে।

নিত্যনতুন ডিজাইন এর বাহার দেখতে পাবেন এই ওয়েবসাইটে। পরিবারের সকলের চাহিদা নয় শুধু সেই সাথে পাবেন ঋতু কালীন আরাম পোশাকও। তবে যারা আপডেট ডিজাইনের কাপড় চান তাদের জন্য এটা হতে চলেছে সব থেকে প্রিয় অনলাইন শপিং সাইট।

তাহলে আর দেরি কেন? চলুন নিরাপদে থেকে, ঘরে বসেই অর্ডার করি নিজের পছন্দের পণ্যটি এবং উপভোগ করি ঈদের আনন্দ #amrts এর সাথে। সবার মাঝে ছড়িয়ে দেই ঈদের আনন্দ। মনে রাখতে হবে শুধু সৌন্দর্য নয় ভালো মানও থাকা দরকার।